বছরের শুরুতেই ওজন কীভাবে কমাবেন

624
dyet plan

স্বাস্থ্যকথা ডেস্ক: ভেবে দেখুন তো, যখন কেউ জানতে চায় বছরের শুরুতেই কি চান? দেখা যাবে প্রায় সবাই চাইবে ওজন কমিয়ে একদম স্লিম ও ফিট থাকতে। তবে ওজন কমানোর জন্য খুব দ্রুত ওজন কমে এমন চটকদার বিজ্ঞাপন বা ডায়েট ফলো করলে ক’দিন দেখা দিতে পারে বিপত্তি।
এই কম সময়ের ওজন কমানোর ডায়েট করলে আমাদের শরীরের যে ক্ষতি হয়:

• ত্বক কুঁচকে যায়, শরীরে কালো দাগ পড়ে তামান্না চৌধুরী
• খাবারে অরুচি দেখা দেয়
• ঘুমেও বিঘ্ন ঘটতে পারে
• শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দেয়
• প্রোটিনের ঘাটতির কারণে চুল রুক্ষ হয়ে পড়তে শুরু করে
• দুর্বল লাগে, কর্মশক্তি হ্রাস পায়
• রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে আসে।

সঠিক ডায়েট মেনেও ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। যেমন প্রতিদিনের ডায়েট প্লান হতে পারে এমন:
• ওজন কমাতে ভালো মতো সকালের নাস্তা খাওয়া খুবই জরুরি।
• খালিপেটে কুসুম গরম পানিতে লেবু ও মধু মিলিয়ে পান করতে পারেন
• ১০.৩০ থেকে ১১টা অর্থাৎ মধ্য সকালে হালকা কোনো খাবার গ্রহণ করুন যেমন ফল/ লেবু দিয়ে রঙ চা/ ডাবের পানি/ শশা/ গ্রিন টি ইত্যাদি।

• দুপুরে ১-১.৩০টার মধ্যে মধ্যাহ্ন ভোজ শেষ করুন, মেন্যুতে রাখুন অল্প ভাত বা রুটি/ সালাদ/ শাক/ সবজি/ মাছ

• বিকালে ৪-৫টার মধ্যে আরেকটি খাবার খাবেন, যা খুবই হালকা হবে, যেমন- বাদাম/ গ্রিন টি/ সুগার ছাড়া বিস্কুট/ ফল/ মাঠা

• রাতের খাবার অল্প পরিমাণে খাবেন ৮-৮.৩০টার মধ্যে। রুটি/ সবজি/ মুরগি বা মাছ খেতে পারেন।

• শোবার আগে টকদই বা ফ্যাট ফ্রি দুধ পান করুন।

এই খাবারগুলোর পরিমাণ নির্ভর করবে আমাদের ক্যালরি চাহিদার ওপর। সাধারণত ওজন কমাতে ক্যালরি চাহিদা বয়স, ওজন, পরিশ্রম, রোগের ওপর ভিত্তি করে নির্ধারণ করা হয়।

তাই ওজন কমাতে অবশ্যই খাওয়া কমানোর আগে জেনে নেয়া ভালো কি কারণে ওজন বেড়েছে। কেননা কারণ জানতে পারলে আমরা খুব সহজে ওজন কমাতে পারব এবং তা দীর্ঘস্থায়ীও হবে।

তামান্না চৌধুরী, পুষ্টিবিদ, এভারকেয়ার হাসপাতাল